1. admin@snb24bd.com : admin :
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ১০:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মোংলায় ৭০ কেজি বিষ মিশ্রিত চিংড়ি মাছ জব্দ কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা অ্যাডভোকেট ইনামুল হোসাইন সুমন এর পক্ষ থেকে দুস্থদের ঈদ উপহার শ্যামনগর বাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাংবাদিক এম,কামরুজ্জামান ইউপি সদস্য আনারুলের অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে শ্যামনগর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন শ্যামনগরে মৎস্য ঘের নিয়ে প্রতিপক্ষের হুমকিতে থানায় পরপর দুই জিডি শ্যামনগরে আত্মসমর্পনকৃত জলদস্যুদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ শ্যামনগরে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু শ্যামনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক পথচারী মৃত্যুু শ্যামনগরে র‌্যাবের উপর হামলা” আহত- ৮ শ্যামনগরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন কারীকে ভ্রাম্যমান আদালতে ৫০ হাজার টাকা জরিমান

ইউপি সদস্য আনারুলের অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে শ্যামনগর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

এম,কামরুজ্জামান শ্যামনগর সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
  • সময় : সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১
  • ২৩২ বার পঠিত
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

 


সাতক্ষীরা’র শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আনারুলের অত্যাচার নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে ১৯ জুলাই দুপুর ১২ টায় শ্যামনগর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলার মরাগাং (যতীন্দ্রনগর)গ্রামে মোঃ সুজাউদ্দীন গাজীর ছেলে মোঃ জব্বার গাজী।
তিনি লিখিত বক্তেব্যে বলেন,আমি মরাগাং গ্রামের একজন স্থায়ী বাসিন্দা আমি পেশায় একজন জেলে, সুন্দরবনের গহীন জঙ্গলে মাছ, কাঁকড়া ও মধু আহরণ করে জীবিকা নির্বাহ করি।আমার পরিবারের সদস্য ৫ জন,আমি পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি, বন বিভাগ থেকে পাস পারমিট নিয়ে মাছ ধরতে যায়, ইউপি সদস্য মোঃ আনারুল ইসলাম এর সঙ্গে ভাল সম্পর্ক ছিল,এলাকার বিভিন্ন উন্নয়নে আমাকে নিয়ে সর্বদা কাজ করতো, মাঝেমধ্যে আমাকে খারাপ কাজ করতে বাধ্য করিত, সে কারণে তার সঙ্গে মনোমালিন্য হয়। আমি তার সঙ্গ ছেড়ে দেয়, ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম এর অফিসের পাশে আমি যুব গঠনের জন্য অফিস খুলি। সেই আক্রোশে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করার জন্য চক্রান্তে লিপ্ত থাকে। গত ২ জুলাই ২১ তারিখ রাত এগারোটার দিকে ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম সহযোগী গ্রামের মৃত সাকার আলী সরদারের পুত্র বাবু সরদার আমার বাড়িতে হরিণের মাংস তুলে দেয়। তারপর আনারুল ইসলাম বন বিভাগকে মোবাইলের মাধ্যমে জানাইয়া আমার বাড়িতে বনবিভাগের ফোর্স নিয়ে আসে এবং আমাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ধরিয়ে দেয়। ৩ জুলাই থেকে ১৮ জুলাই সাতক্ষীরা জেল হাজতে আটক থাকি। আমার ভাই আব্দুল করিম আমাকে আইনি প্রক্রিয়ায় জেল থেকে বাহির করার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা করে, একপর্যায়ে আমার ভাই আনারুলের কাছে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন আমি থেকে জব্বারক ধরিয়ে দিয়েছি আবার আমি থেকেই তাকে ছাড়ানোর ব্যবস্থা করব। সে কথা বলে আমার পরিবারের কাছে ছাড়ানোর জন্য আনারুল মেম্বার উৎকোচ অন দাবি করে। আমি আনারুল মেম্বারের ষড়যন্ত্রের ফাঁদে পড়ে নিরাপদ ব্যক্তি হিসেবে ১৫ দিন জেল হাজতে আটক ছিলাম, যার কারণে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। সেকারণে ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আনারুল মেম্বার ও বাবু সরদার আমাকে মিথ্যা ভাবে হরিণের মাংস দিয়ে ধরিয়ে দেওয়া বিষয় এবং অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে এ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ঠ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২১ SNB 24 BD
Theme Customized BY Theme Park BD